কখনও ভেবেছেন রবিবারে কেন ছুটি থাকে?

author image
5:13 pm 6 Nov, 2017

Advertisement

রবিবার এমন একটি দিন যার অপেক্ষা সকলেই করে। এই দিনটিতে একজন ব্যক্তি তার পরিবার এবং বন্ধুদের সাথে সময় কাটানোর সুযোগ পায়।

একবার ভাবুন রবিবার যদি ছুটি না থাকতো কি হতো, এই দিনটিতে মানুষ তার কর্মব্যস্ততা থেকে আরাম পায়। পুরো সপ্তাহের মধ্যে এই একটিমাত্র দিন ছুটি থাকে। কিন্তু রবিবারের এই ছুটি আমরা এত সহজে পায়নি। এর পেছনেও রয়েছে সংঘর্ষ।

যেভাবে ব্রিটিশ শাসনের শিকল থেকে স্বাধীনতা পাওয়ার জন্য সংঘর্ষ করতে হয়েছিল, একইভাবে সপ্তাহে একদিনের ছুটির জন্য আমাদের অনেক সংগ্রাম করতে হয়েছিল।

রবিবারের ছুটির দিন একদিনে ঘোষণা করা হয়েনি। আট বছরের দীর্ঘ যুদ্ধের পর রবিবার ছুটি পেয়েছি।

যখন ভারতে ব্রিটিশ শাসন ছিল তখন দেশের শ্রমিকরা প্রতি দিন কাজ করতেন, টেক্সটাইল ও অন্যান্য ধরনের মিলগুলিতে কর্মরত শ্রমিকদের এক জিনের জন্য বিশ্রাম দেওয়া হতো না।



সেই সময়ে শ্রমিকদের নেতা ছিলেন শ্রী নারায়ণ মেঘাগী লোখান্দে, যিনি শ্রমিকদের অধিকারের পক্ষে আন্দোলন শুরু করেন।

শ্রম আন্দোলনের জনক রূপে পরিচিত। লোখান্দে 1881 সালে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের সামনে কর্মীদের জন্য একদিনের ছুটি দাবি করেন।

শ্রমিকদের আওয়াজ লোখান্দে ব্রিটিশদের কাছে রবিবার ছুটি দেওয়ার জন্য আবেদন করেন। কারণ সেইদিন ইংরেজরা গির্জায় যেতেন এবং হিন্দু দেবতাদের খন্ডোবা দিন রুপে পরিচিত ছিল। কিন্তু ইংরেজ কর্মকর্তারা এর জন্য প্রস্তুত ছিলেন না।


Advertisement

এরপর লোখান্দে ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী আন্দোলন শুরু করেন। 1881 থেকে 1889 পর্যন্ত চলা কঠিন যুদ্ধের পরিশেষে ব্রিটিশ শাসনকে হার মানতে হয়। চিরকালের জন্য রোববার দিনটিকে ছুটির দিন বলে ঘোষণা করা হয়।

নারায়ণ মেঘাগী লোখান্দের জন্যই দুপুরে কাজ করার মাধখানে আধ ঘন্টা খাওয়ার জন্য, প্রতি মাসে 15 তারিখের মধ্যে বেতন পাওয়া সম্ভব হয়েছে।


  • Advertisement