Advertisement

ষষ্ঠদশ শতকে নির্মিত এই মন্দিরের স্তম্ভগুলি বিস্ময়কর এবং রহস্যময়

author image
12:31 pm 22 Nov, 2017

Advertisement

অন্ধ্রপ্রদেশের আনন্তপুর জেলার লেপাক্ষী মন্দির ঝুলন্ত স্তম্ভের জন্য সারা বিশ্ব জুড়ে খ্যাত রয়েছে।

ষষ্ঠদশ শতকে নির্মিত এই মন্দিরের স্তম্ভের রহস্য এখনও পর্যন্ত সমাধান হয়েনি। এই খোদিত স্তম্ভটির বিশেষত্ব হল যে এর নিচের অংশ মাটিকে স্পর্শ করে না। এখানে যে সমস্ত তীর্থযাত্রী আসেন। তারা তাদের মনের ইচ্ছা পূরণ করার জন্য এই ঝুলন্ত স্তম্ভের নিচ থেকে নিয়ে যাওয়া কাপড় নিয়ে যান। বিশ্বাস করা হয় যে এই রকম করলে মনের ইচ্ছা পূরণ হয়।

বলা হয় যে ব্রিটিশ শাসনে এই স্তম্ভের রহস্য জানার জন্য একজন ইঞ্জিনিয়ার এই মন্দিরের একটি অংশ ভাঙার চেষ্টা করেছেন। তার ফলে জানা যায় মন্দিরের সব অংশের স্তম্ভ বাতাসে ভাস্যমান।


Advertisement

পৌরাণিক বিশ্বাসের ভিত্তিতে, এই মন্দিরের নির্মাণ করিয়েছিলেন ঋষি অগাস্টা। একই সময়ে, ঐতিহাসিকদের মতে, এটি 1583 খ্রিস্টাব্দে দুই ভাই (বীরপনা ও ভিড়ানা) দ্বারা নির্মিত হয়েছিল, যারা বিজয়নগরের রাজার কাছে কর্মরত ছিলেন।

বিজয়নগর শৈলীর এই মন্দির নাগলিঙ্গ প্রতিমার কারণে বিখ্যাত।। এই মূর্তি একই পাথর দিয়ে তৈরি এবং ভারতে বৃহত্তম নাগলিঙ্গ মূর্তি হিসেবে বিবেচিত হয়।

এখানে শিব, ভগবান বিষ্ণু, বীরভদ্রের পৃথক পৃথক মন্দির আছে।

Advertisement


  • Advertisement