Advertisement

সমুদ্রে সাঁতার কাটছিল 13 বছরের একটি ছেলে, হঠাত্ পেছনে দেখতে পায় তার মৃত্যুকে

author image
1:12 pm 15 Aug, 2017

Advertisement

দক্ষিণ ক্যারোলিনাতে অবসর সময কাটানোর সময় এক ভাই ও বোনের জুটি সি পাইন্স বিচ ক্লাবের সামনে মজা করছিল। রসিকতা করতে করতে বোন ভাইকে ধাক্কা দিয়ে সমুদ্রে ফেলে দেয়। এই মজা দুর্ঘটনায় পরিণত হয়।

একটি ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, 13 বছরের লিন্টন পরিবারের সাথে ছুটি কাটানোর জন্য পাইন্স বিচ ক্লাবে গিয়েছিল। সেই সময় তার 11 বছরের বোন তাকে ধাক্কা দিয়ে সমুদ্রে ফেলে দেয়। সমুদ্রের তীর হওয়ার ফলে সেখানে বেশি জল ছিল না সেইকারণে লিন্টন সাঁতার কাটতে শুরু করে। সাঁতার কাটার সময় সে সমুদ্রের প্রাণীর প্রথমে তার মনে হয় সেটা কোনও ঝিনুক হবে।

কিন্তু যতক্ষণে সে জল থেকে বেরাতো ততক্ষণে তার পায়ের ওপর হামলা করে দিয়েছিল। লিন্টন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। কিন্তু হাঙ্গর তার পায়ের অনেক জায়গায় আঘাত করেছিল। বেরিয়ে আসার পর এই কথাটি যখন সে তার মা-বাবাকে বলে তারা অবিশ্বাস করে।


Advertisement

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর যে রিপোর্ট আসে তখন সব সত্য সম্মুখে আসে। হাঙ্গরের ওপর গবেষণাকারী গবেষকরা জানিয়েছেন যে লিন্টনের পায়ের ওপর সে ক্ষত রয়েছে সেটা হাঙ্গরের কারণে হয়েছে। তাঁরা জানিয়েছে সে গুরুতরভাবে জখম হয়েনি।সত্য জানার পর সকলের ধারণা হয় বেশি দেরি হলে লিন্টন নিজের পা হারিয়ে ফেলতো।

গবেষকরা বলেছেন এখনও পর্যন্ত হাঙ্গর তিন জনের ওপর হামলা করেছে। লিন্টন হলো চতুর্থ ব্যক্তি যার ওপর হাঙ্গর হামলা করেছে। গত 28 জুলাই হাঙ্গের প্রথম শিকার ছিল 10 বছরের জনি সিমাটেকোলোস। এরপর 14 বছরের রিগ্যান এবং 16 বছরের অলিভিয়াকে আলাদা আলাদা জায়গায় হাঙ্গর শিকার করেছে।

 

Advertisement


  • Advertisement