14 টি বিষয় যেগুলি নিষিদ্ধ করা হয়েছে ভারতে

author image
1:40 pm 4 Nov, 2017

কলিযুগ সম্ভবত এটাকে বলা হয়, যার সম্বন্ধে আমাদের দাদু-ঠাকুমারা বলে থাকেন। সময় খুব দ্রুত পরিবর্তন হচ্ছে। যার কারণে আমরা নিষেধাজ্ঞার শীর্ষে রয়েছি। নিষেধাজ্ঞা এখনও দাসত্বের সময়ের কথা মনে করিয়ে দেয়।

1. বিবিসির পক্ষ থেকে সম্প্রচারিত করা ডকুমেন্টারী ‘ভারতী কন্যা’-র ওপর নিষেধাজ্ঞা, কারণ সরকার নারীদের একটি নিরাপদ পরিবেশ দিতে সক্ষম নয়।কিন্তু তারা মনে করেন যে আমরা ডাউনলোড করতে পারিনা।

2. গরুর মাংস। কারণ গরু আমাদের মা। কিভাবে আপনি আপনার মা-কে রান্না করে খেতে পারেন? এটা নিন্দানীয় বিষয়!

3. সিনেমা ফিফ্টী শেডস্ অফ গ্রে, পাঞ্চ, ফায়ার এবং এরকমই আরও অনেকে সিনেমা ভারতে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কিন্তু আপনি যে কোনও সময় পর্ন দেখতে পারবেন।

4. ‘সমকামী’ শব্দ এই শব্দটির অস্তিত্ব নেই, তাই এগুলি থেকে নিষিদ্ধ করা। এখন যখন আমরা সব শব্দ নিষিদ্ধ করে দিই। তাহলে অর্ধেক ভারতের সমস্যা একই ভাবে সমাধান হয়ে যাবে।

5. পাবলিক স্থানে ধূমপান করা নিষিদ্ধ। একমাত্র নিষেদ্ধাজ্ঞা যেটা সঠিক।

6. সমকামীতা, “অপ্রাকৃতিক যৌন সম্পর্ক” যদি সদোমে কিছু বলা শুরু হয়, তাহলে বিচার বিভাগকে সমকামীতার বিষয়গুলি গ্রহণ করতে হবে। এটা অনৈতিক। ভারতীয়রা শুধুমাত্র মিশনারি স্টাইল পছন্দ করে!

7. যৌন খেলনা: নিজেদের মজা জন্য? না, এর ওপর আমাদের কোনও আস্হা নেই। আমরা শুধুমাত্র একটি বৃহত্তর স্তরে শিশুদের জন্য বন্দুক-পাম্প এবং খেলনা উৎপাদন বিশ্বাস করি।

8. গাঁজা কেন নিষিদ্ধ? ভারত কেন নিষিদ্ধ? কিন্তু পুলিশের কাছে থেকে সহজে ক্রয় করা সম্ভব।

9. AIB রোস্ট তাদের ভুল হচ্ছে মানুষকে হাঁসানো।

10. য়েন্ডি ড্যানিয়েয়ারের ‘দ্য হিন্দু’, সালমান রুশদির ‘দ্য শয়তানিক ভারসেস’ এবংএ রকমই অনেক বই ভারতে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কারণ শব্দ হলো অস্ত্র। শব্দ মানুষকে চিন্তা করতে এবং পরিবর্তন হতে বাধ্য করে।

11. ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মাওবাদী).কারণ রাজ্য প্রতিষ্ঠান উটপাখির মত আচরণ করছে। স্মার্ট সিটি উপজাতীয়র অগ্রগতি ও উন্নয়নে সহায়ক হবে।

12.পর্নোগ্রাফি: যদিও এটি নিজের সাথে রাখার অধিকার রয়েছে, তবে তৈরি করা এবং প্রকাশ বেআইনি।

13. গোয়াতে “বিকিনি” নিষিদ্ধ। আসুন আমরা সব পর্যটকদের ভিসা দেবো তারসাথে শাড়িও দেওয়া হবে।

14. মুম্বাইয়ের ড্যান্স বারের ওপর নিষেধাজ্ঞা কারণ পুরুষদের বিপথে চালিত হওয়ার থেকে বাঁচাতে হবে।