গবেষণার সময় ছাত্ররা সমুদ্র থেকে ক্যামেরাটি খুঁজে পান, এরপর সামনে এলো…….

author image
1:10 pm 29 Aug, 2017

Advertisement

সমুদ্র থেকে অনেকসময় এমন অনেক জিনিস পাওয়া যায় যেটা দেখার বা শোনার পর আপনি অবাক হয়ে যান। সেটা সামুদ্রিক অদ্ভুত প্রাণী বা পুরানো জিনিসও হতে পারে। সম্প্রতি ভ্যানকুভার দ্বীপ রিসার্চ করতে যাওয়া দুজন ছাত্র সমুদ্র থেকে একটি ক্যামেরা পাওয়া যায়, যেটা সুরক্ষিত অবস্হায় ছিল।

একটি ওয়েবসাইট অনুযায়ী, মরীন বায়োলজির দুটি ছাত্র বিউ ডোহার্টি ও টেলা ওসলার সমুদ্রের চারপাশে গবেষণা করছিল। গবেষণা করার জন্য তারা ভ্যানকুভার দ্বীপে গিয়েছিল। যখন তারা জলে 40 ফুট পর্যন্ত প্রবেশ করে তখন এক ছাত্র সমুদ্রের মধ্যে এমন একটি জিনিস পান যেটার সম্পর্ক কোনও প্রাণীর সাথে ছিল না। এরপর দুজনে ভালো করে এটাকে দেখে বুঝতে পারে যে এটা একটি ডিজিটাল ক্যামেরা।



এরপর ছাত্রটি পকেটের মধ্যে ক্যামেরাটি রেখে তাদের কাজ করতে শুরু করে। গবেষণার পর তারা তাদের সুপারভাইজার অধ্যাপক সায়ান গ্রে এবং তার সহকারী অধ্যাপক কোটের কাছে যায়। ক্যামেরা দেখার পর তারা জানতে পারে এটা ফটো তোলার সাধারণ ক্যামেরা নয়। ক্যামেরা খোলার পর তার ভেতর থেকে পাওয়া যায় একটি মেমরি কার্ড। পরিষ্কার করে কম্পিউটারে লাগানোর পর সেটা কাজ করতে শুরু করে। তারা জানিয়েছে, এই মেমরি কার্ডের মধ্যে 2012 সালের অনেক ছবি এবং ভিডিও ছিল।


Advertisement

ফটোগুলি ছিল বেশিরভাগই পরিবারের। মেমরি কার্ডের মধ্যে পরিবার রি ইউনিয়নের প্রচুর ছবি এবং ভিডিও রয়েছে। ক্যামেরাটিকে তার আসল মালিকের কাছে পৌছে দেওয়ার জন্য কোট কয়েকটি ফেসবুকে আপলোড করেছে। কিন্তু কিছুই জানা যায়নি। এরপর তারা কয়েকটি ছবির প্রিন্টআউট বের করে পুরো এলাকায় আটকাতে শুরু করে। এরপরই একজনের নজর এই ফটোতে পড়ে এবং ফটোতে উপস্হিত ব্যক্তিকে চিনতে পারে। এরপর ক্যামেরাটির মালিককে ফোন করে ডাকা হয় এবং তার জিনিস তাকে ফেরত্ দিয়ে দেওয়া হয়। ক্যামেরার মালিক বলেছে, দুবছর আগে তিনি উদ্ধারকাজের জন্য সমুদ্রে গিয়েছিলেন সেই সময় ক্যামেরাটি জলে পড়ে যায়।


  • Advertisement