এই 10 হিন্দু ঐতিহ্যের পেছনে রয়েছে বৈজ্ঞানিক কারণ, আপনিও জানুন

author image
4:16 pm 1 Dec, 2017

Advertisement

হিন্দুধর্মে রয়েছে অনেক নিয়ম। অনেকে এগুলিকে কুসংস্কার বলে মনে করেন। কিন্তু আপনি কি জানেন এই ঐতিহ্যের পিছনে বৈজ্ঞানিক কারণ আছে?

1. নমস্কার

কাউর সাথে দেখা হলেই আমরা হাত জোড় করে নমস্কার করি। কিন্তু এর পিছনে একটি বৈজ্ঞানিক কারণ রয়েছে। যখন আমাদের আঙুল একসাথে জুড়ে তখন তাদের ওপর চাপ পড়ে। একিউপ্রেসারের কারণে এর সরাসরি প্রভাব আমাদের চোখ, কান এবং মনের উপর পড়ে। নমস্কার করার ফলে অন্যের হাত স্পর্শ করতে হয় না, এটি আপনাকে জীবাণুর সংস্পর্শে আসার থেকেও রক্ষা করে।

2. পিপল গাছের পূজা

হিন্দুধর্মের ক্ষেত্রে, নারীরা পিপল গাছের পূজা করে। কিন্তু এর পিছনে একটি বৈজ্ঞানিক কারণ আছে, যার অনুসারে পিপাল গাছের পূজা করা হয় যাতে এই গাছের প্রতি মানুষের সম্মান বৃদ্ধি পায় এবং গাছ কাটা না হয়। পিপল একমাত্র গাছ যা রাতে অক্সিজেন দেয়।

3. তিলক লাগানো


Advertisement

কোন শুভ কাজের সময় কপালে তিলক লাগানো হয়। যখন বুড়ো আঙুল দিয়ে মাথায় তিলক লাগানো হয় তখন তার ওপর চাপ পড়ে মুখে রক্ত ​​সরবরাহকারী পেশীগুলি সক্রিয় হয়ে ওঠে।

4. কান ফোঁটানো

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মেয়েরা কান ফুঁটো করে। কিন্তু অনেক রাজ্যে ছেলেদেরও কান ফুঁটো করার নিয়ম আছে। বিজ্ঞানীদের মতে, এর ফলে স্মরণ শক্তি বেড়ে যায়। ডাক্তারদের মতে, কানের মাধ্যমে কান থেকে মস্তিষ্কে রক্ত ​​প্রবাহ সঠিকভাবে হয়।

5. মাটিতে বসে খাওয়া



বর্তমানে শহরাঞ্চলে ডাইনিং টেবিলে বসে খাওয়ার প্রবণতা রয়েছে। কিন্তু আমাদের সংস্কৃতিতে মাটিতে বসে খাওয়ার নিয়ম রয়েছে। এটি একটি প্রকারের যোগব্যায়াম। সেই অবস্হায় বসলে মন শান্ত থাকে। মন শান্ত থাকলে খাবারও ভালোভাবে হজম হয়।

6. সিঁদুর লাগানো

হিন্দুধর্মে বিবাহিত মহিলাদের সিঁদুর লাগানো বাধ্যতামুলক। এটির পিছনে একটি বৈজ্ঞানিক কারণও রয়েছে। সিঁদুরে হলুদ, লেবু এবং পারদ থাকে যা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে। শুধু তাই নয়, যৌন উত্তেজকতা বৃদ্ধি পায়, এই কারণে বিধবাদের সিঁদুর লাগানোর নিয়ম নেই।

7. চুড়ি পড়ানো

চুড়ি পড়ানোর পেছনে বৈজ্ঞানিক কারণ হলো হাতে চুড়ি পড়ানোর সময় ত্বকের মধ্যে ঘর্ষণ হয় যার ফলে শরীরে শক্তি রক্ত ​​প্রবাহ সঠিকভাবে হয়।

8. সূর্য নমস্কার

হিন্দুধর্মে, সূর্যকে দেবতা রূপে পূজা করা হয়। সকালে সূর্যকে জল দেওয়ার এবং নমস্কার করার ঐতিহ্য আছে। এর ফলে জলের মধ্যে থেকে আসা সূর্যের আলো চোখে এসে লাগে যার ফলে চোখের জ্ব্যোতি ভালো থাকে।

9. শিখা

ব্রাহ্মণদের মাথার পেছনে ঝুঁটি রাখার নিয়ম আছে। আজও বহু পণ্ডিতদের মাথার পেছনে ঝুঁটি আছে। এই পিছনে বৈজ্ঞানিক যুক্তি যে মস্তিষ্কের সমস্ত স্নায়ু সেই জায়গায় এসে মিলে যায়। এর ফলে মন স্থির থাকে এবং রাগও কম হয়।

10. উপবাস থাকা


Advertisement

হিন্দুধর্মে পূজোর সময় উপবাস রাখতে হয় পূজোর ফলাফল পাওয়ার সাথে পাচনতন্ত্রও ঠিক থাকে। উপবাসের সময় শুধুমাত্র ফল খেতে হয়। যার ফলে শরীর থেকে ক্ষতিকারক টক্সিন বেরিয়ে যায়।


  • Advertisement