Advertisement

কাশ্মীরের এই গীর্জায় 50 বছর পরে বাঁজলো নতুন ঘন্টা

author image
5:20 pm 30 Oct, 2017

Advertisement

কাশ্মীরের একটি গীর্জায় 50 বছরে এই প্রথমবার ঘন্টা বাঁজলো। শ্রীনগরে অবস্হিত 121 বছর পুরানো এই ক্যাথলিক গীর্জায় ঘন্টা বাঁজানোর অনুষ্ঠানে মুসলিম, হিন্দু, শিখ ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষ একত্রিত হয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উদাহরণ উপস্থাপন করেন।

এই ঘণ্টা ওজন প্রায় 105 কিলোগ্রাম। সম্প্রতি এখানে ঘন্টা লাগানো হয়েছে।

1967 সালে মধ্য প্রাচ্যে যুদ্ধের সময় প্রতিবাদকারীদের দ্বারা এই ঘণ্টা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। গির্জার অন্য অংশেরও ক্ষতি করা হয়।

গির্জার মুখপাত্র এস এম রথ বলেছেন,

“আসল ঘন্টা 1967 সালের 7 জুন আগুনে পুড়ে যায়। এই ঘন্টা প্রথমে লাগানো সম্ভব হয়েনি কারণ আমাদের কাছে সরঞ্জামের অভাব ছিল। 50 বছর পর 105 কিলো নতুন ঘণ্টা লাগানো হয়েছে। এই অনুষ্ঠানে সব সম্প্রদায়ের মানুষকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

রথ বলেছেন, শ্রীনগরে বসবাসকারী 30 খ্রিস্টান পরিবার এই ঘণ্টায় সহযোগিতা প্রদান করেছেন।

টাইমস অব ইন্ডিয়া, গীর্জার ফাদার রায় ম্যাথিউস বলেছেন, সব সম্প্রদায়ের উপস্হিতি কাশ্মীরের মিশ্র সংস্কৃতিকে দেখায়।


Advertisement

ম্যাথিউস বলেছেন,

“বার্তা স্পষ্ট যে আমরা সবাই এক। আমাদের ধর্ম ভিন্ন হতে পারে, কিন্তু আমরা সবাই মানুষ। আজ সারা বিশ্বের ধর্মের নামে হিংসা হচ্ছে এবং এই বার্তাটি পৌছানো প্রয়োজন।”

কাশ্মীরে চলমান হিংসা, বিক্ষোভের মধ্যে গির্জার এই উদ্যোগ প্রশংসনীয়।

Advertisement


  • Advertisement