এভাবে বাঁচবে নিরীহদের প্রাণ, হোটেল কর্মচারীদের দেওয়া হবে প্রশিক্ষণ

author image
1:28 pm 5 Aug, 2017

Advertisement

যৌন পাচার শুধুমাত্র ভারতবর্ষে নয় সমগ্র বিশ্বের কাছে এখন চিন্তার বিষয়। প্রতি বছর প্রচুর সংখ্যক মেয়ে এবং শিশুদের এই ব্যবসায় জোর করে আনা হয়। তাদের সাথে পশুদের মতো আচরণ করা হয়। একবার আটকে গেলে তাদের পক্ষে বেরিয়ে আসা সম্ভব হয় না।

এবার এই নির্দোষদের যৌন পাচার থেকে বাঁচানোর জন্য নতুন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এই উদ্যোগ অনুযায়ী মুম্বই সহ শহরের অন্যান্য হোটেলের কর্মচারীদের সেক্স ট্রাফিকিং সম্বন্ধে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। প্রথম এই উদ্যোগটি নিয়েছে থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেসন।


Advertisement

ফাউন্ডেশন এমন একটি অ্যাপের ওপর কাজ করছে যেটা হোটেল কর্মীদের এবং স্থানীয় পুলিশকে কোনও সন্দেহজনক কার্যকলাপ সম্বন্ধে খবর দেবে। এই অ্যাপটির নাম হলো Rescue Me App, এটা কয়েক মাসের মধ্যে চালু করা হবে। হোটেল ব্যবসার সাথে যুক্ত একজন ব্যক্তি জানিয়েছেন বেশিরভাগ পাচার মূলত হোটেলের মাধ্যমে হয়। এখন এটা নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করা হচ্ছে।



বেশিরভাগ শহরের মধ্যে মুম্বই যৌন পাচারের মতো কাজের জন্য কুখ্যাত। কাজের টোপ দিয়ে বহু মেয়ে এবং মহিলাদের দেশ এবং প্রতিবেশী দেশ থেকে নিয়ে আসা হয়। পরে তাদের বিক্রি করে দেওয়া হয়। সেজন্য মহারাষ্ট্র সরকার এই গোষ্ঠীকে সাহায্য করছে।


Advertisement

হোটেলের কর্মচারীদের এই বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। যাতে হোটেলে আসা লোকেদের ক্রিয়াকলাপ এবং অঙ্গভঙ্গিগুলি সনাক্ত করা যায়। এই উদ্যোগটি ছোট মনে হলেও বহু মেয়েদের জীবন বাঁচানো সম্ভব হবে।


  • Advertisement