বিশ্বের প্রাচীনতম মন্দিরের মধ্যে একটি হলো মুন্ডেশ্বর মন্দির

author image
12:54 pm 29 Jul, 2017

Advertisement

বিহারের মুন্ডেশ্বর মন্দির হলো বিশ্বের প্রাচীনতম মন্দিরের মধ্যে একটি। শক্তি এবং শিবের জন্য উত্সর্গীকৃত এই মন্দির বিহারে কেইমুর জেলার 608 ফুট উচ্চতায় অবস্থিত। এই মন্দিরটিকে বিশ্বের প্রাচীনতম মন্দির বলা হয়, আজও এখানে পূজো হয়।

এই মন্দিরের নির্মাণ হয়েছিল দ্বিতীয় শতাব্দীতে, কিন্তু এই মন্দিরের নির্মাণ নিয়ে রয়েছে আলাদা আলাদা ধারণা। মন্দিরে অবস্হিত ভারতীয় প্রত্নতত্ব বিভাগের সূচনাপত্র অনুযায়ী এই মন্দিরের নির্মাণ হয়েছিল 635 খ্রিস্টপূর্বে। মন্দির পরিসরে উপস্হিত আরেকটি শিলালিপি থেকে জানা যায় এই ঐতিহাসিক মন্দির দেড় হাজার বছর পুরানো।

মন্দিরটি খুঁজে বের করছিলেন পাহাড়ের ওপর অবস্হিত কয়েকজন মেষপালক। শিলালিপি অনুযায়ী, সম্ভবত প্রথমদিকে এই মন্দিরটি বৈষ্ণব মন্দির ছিল। পরবর্তীকালে সেটা শৈব মন্দিরে রূপান্তরিত হয়। মন্দিরে দুর্লভ শিবলিঙ্গ ছাড়া দেবী দূর্গা বৈষ্ণবী রূপে রয়েছেন।



কথিত কাহিনী অনুসারে চন্ড ও মুন্ড নামের দৈত্যকে হত্যা করার জন্য দেবীর আবির্ভাব হয়েছিল। চন্ডের মৃত্যুর পর মুন্ড এই পাহাড়ে লুকিয়ে গিয়েছিল এবং এখানে দেবী তাকে হত্যা করেছিলেন। সেইজন্য এই মন্দির মুন্ডেশ্বরী নামে পরিচিত।

এই মন্দিরের আরেকটি ঐতিহ্য হলো বলিদান। দেবীর সামনে ছাগল আনা হয় কিন্তু বলি দেওয়া হয় না। ছাগলটিকে দেবীর সামনে নিয়ে এসে পুরোহিত মন্ত্রপুত চাল তার ওপর ছড়ানো হয়। এরপর সে অজ্ঞান হয়ে যায় তারপর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।


Advertisement

শ্রীলঙ্কা থেকে ভক্তরা এখানে দর্শনের জন্য আসেন। মন্দির রাস্তা থেকে পাওয়া কয়েনগুলি থেকে এর প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। কয়েন এবং পাহাড়ের পাথরের ওপর তামিল এবং সিংহলী ভাষায় অক্ষর লেখা রয়েছে।


  • Advertisement