আখড়া পরিষদ জারি করলো নকল সাধুদের তালিকা, দিগ্বিজয় সিংহের প্রশ্ন বাবা রামদেবের নাম কেন নেই?

author image
4:35 pm 12 Sep, 2017

Advertisement

গত কয়েক বছর ধরে, নকল সাধুরা তাদের কৃতকর্মের মাধ্যমে সনাতন ধর্মকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে, এবং ভক্তদেরও প্রতারিত করেছে। ধর্মের আকাঙ্খায় বিভিন্ন ধরনের প্রতারণামূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত সাধুরা এখন জেলে দীর্ঘসময় ধরে সনাতন ধর্মের খ্যাতি রক্ষার জন্য এই ধরনের নকল সাধুদের নিষিদ্ধ করার দাবি উঠছিল।

বিশেষ করে ডেরা সাচা সৌদার প্রধান গুরমিট রাম রহিমের গ্রেফতারের পর চাপ আরও বেড়ে যায়।

আখিল ভারতীয় আখড়া পরিষদ জাল বাবদের তালিকা প্রকাশ করেছে, যাদের থেকে লোকেদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আখিল ভারতীয় আখড়া পরিষদ 13 আখাড়োর একটি সংগঠন, যেটাকে সনাতন ধর্মের নেতৃস্থানীয় প্রতিষ্ঠান বলা হয়।

এই তালিকাটি ঠিক এইরকম:


Advertisement

1. আসারাম বাপু
2. রাধা মা
3. সচিডনদ গিরি
4. গুরমিট রাম রহিম
5. ওম বাবা
6.নির্মল বাবা
7. ইচ্ছাধারী বাবা
8. স্বামী অসীমানন্দ
9. মালকান গিরি
10. নারায়ণ সাঈ
11. রামপাল
12. আচার্য কুশমনি
13. ওম নামা:শিবায় বাবা
14. বৃহস্পতী গিরি

কেন এই রকম কাজ করলো সন্ত সমাজ?

সন্ত সমাজ চিন্তিত যে এই ধরনের সাধুদের কারণে সন্ত সমাজ বদনাম হচ্ছে। জনগণের বিশ্বাস আর নেই এবং অন্যান্য সাধুকেও লোকেরা সন্দেহের নজরে দেখছে। সাধুরা এমন সব অপরাধের সাথে যুক্ত যেটা সভ্য সমাজকে লজ্জিত করে, সন্ত বিষয়টি আলাদা রাম রহিমের জেল যাওয়ার পর বেনারসে এই ধরনের বাবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা হয় এবং তাদের কঠোর শাস্তি দেওয়ার দাবি করে। সন্ত সমাজ মনে করে এই তালিকা প্রকাশ করার পর মানুষ সাবধান হয়ে যাবে।



এই তালিকা প্রকাশ করে, আখিল ভারতীয় আখতার পরিষদের সভাপতি স্বামী নরেন্দ্র গিরি জনগণকে সাবধান থাকতে বলেছেন। তিনি বলেছেন, এই তালিকায় যাদের নাম প্রকাশ করা হয়েছে তারা ধর্মের নামে প্রতারণা, নিপীড়ন ও লুটপাট করে।

তালিকায় বাবা রামদেবের নাম না থাকায় বরিষ্ঠ কংগ্রেসের নেতা দিগ্বিজয় সিংহ উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

আপনাদের কি মনে হয় এই তালিকায় বাবা রামদেবের নাম থাকা উচিত?


Advertisement

 


  • Advertisement