Advertisement

কলকাতায় দরিদ্রদের জন্য খোলা হলো ‘ফুড এটিএম’, একটি অনন্য উদ্যোগ

author image
12:58 pm 24 Aug, 2017

Advertisement

কলকাতা এমন একটি মহানগর যেখানে এখনও বহু মানুষ রাস্তার ধারে ঘুমিয়ে থাকে এবং খাবারের জন্য মন্দিরে বা দোকানে লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকে। মন্দিরের দানের টাকা দিয়ে দরিদ্রদের জন্য খাবার বিতরণের আয়োজন করা হয়। এই সমস্ত জায়গায় অধিক সংখ্যয় দরিদ্রদের দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। এইরকমই প্রতিষ্ঠানের এক মালিক কযেকটি সংস্হার সাথে যোগ দিয়ে ‘ফুড এটিএম’ শুরু করার একটি অনন্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।

সাধারণত আমরা যখন হোটেলে খাবার খেতে যাই তখন আমরা প্রযোজনের তুলনায় অতিরিক্ত খাবার অর্ডার করি। এর ফলে অর্ধেক খাবার ফেলে দিতে হয়। এই বিষয়টিকে মাথায় রেখে সাংফা চাকমা গ্রুপের সহ-মালিক আসিফ আহমেদ ‘ফুড এটিএম’ -এর তিনটি প্রতিষ্ঠান রোটারি, গোল টেবিল এবং জিটো এর সহায়তায় এই উদ্যোগ শুরু করেছেন।


Advertisement

এটিএম আহমেদ পার্কের পার্ক সার্কাস রেস্তোরাঁর বাইরে বসানো হয়েছে, যার ফলে খাবার নষ্ট হবে না।এটি একটি স্বচ্ছ দরজার ফ্রিজ যা খাদ্য সঞ্চয় করতে ব্যবহৃত হয়।

আহমেদ তার গ্রাহকদের অতিরিক্ত খাবারকে প্যাক করে দান করতে বলেন। রেস্টুরেন্ট ছাড়াও, শহরের অন্যান্য মানুষ খাবার দান করছে। এ ব্যাপারে সকলকে উত্সাহ করা হচ্ছে যাতে তারা অবশিষ্ট খাবারের সাথে তাজা খাবারও দান করে, যা দরিদ্রদের জন্য উপযোগী হবে।

আহমেদের মতে, শহরের বিভিন্ন জায়গায় এই ধরনের এটিএম বসানো উচিত। এটিএমের ওপর একটি প্লে কার্ড রয়েছে যার ওপর লেখা হয়েছে ‘এক বছরে ভারতে যে পরিমাণে খাদ্য নষ্ট হয়, সেই পরিমাণ খাবার মিশরীয় জনগোষ্ঠীকে এক বছর পর্যন্ত খাওয়ানো যাবে।’

এই এটিএমের প্রাথমিক বিনিয়োগ 50,000 টাকা, যার মধ্যে রয়েছে রেফ্রিজারেটর। দেশের বিভিন্ন অংশে এই ধরনের এটিএম রয়েছে। সেখান থেকে প্রেরণা নিয়ে এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন এই এটিএম দরিদ্রদের জন্য বরদানের মত।

Advertisement


  • Advertisement