গুরমিট রাম রহিম তার মহিলা অনুগামীদের তার জন্য কারভা চৌথ রাখার উপদেশ দিতেন

author image
3:36 pm 12 Sep, 2017

Advertisement

দুই সপ্তাহ আগে দুই মহিলা অনুগামীদের সাথে ধর্ষণের জন্য 20 বছরের জেল হয়েছে গুরমিট রাম রহিমের। তারপর থেকে তার সম্পর্কে বহু বিষয় জানা যাচ্ছে। তার আশ্রমে তল্লাসির সময় জানা যায় গোপন সুড়ঙ্গের মাধ্যমে মহিলাদের হোস্টেলে যাওয়ার রাস্তা রয়েছে।

এরপর মিডিয়াতে খবর আসে গুরমিট রাম রহিম জেলে অচেতন ও অস্থির বোধ করছেন। তার পুরো পরীক্ষা করার পর ডাক্তাররা জানান, গত কয়েক দিন ধরে কোনও যৌনসুখ না পাওয়া তিনি অস্বস্তি বোধ করছেন। এছাড়া তিনি আরও বলেন রাম রহিম এনার্জি ড্রিঙ্কে আসক্ত যেটা তার শক্তির আসল উত্স।

সম্প্রতি মিডিয়াতে একটি ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে। যেখানে গুরমিট রাম রহিমকে তার মহিলা অনুসারীদের তার দীর্ঘ জীবনের কামনার জন্য কারভা চৌথ রাখতে বলছেন।


Advertisement

কারভা চৌথ সাধারণত মহিলারা তাদের স্বামীদের দীর্ঘ আয়ুর কামনার জন্য এই ব্রত পালন করেন। কিন্তু রাম রহিম তার মহিলা অনুগামীদের মেয়ে বলতেন। তাহলে কেন তাদের মহিলা অনুসারীদের কারভা চৌথ রাখতে বলতেন? নিজের স্ত্রী থাকা সত্ত্বেও।

ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে গুরমিট রাম রহিম সমাবেশে মহিলাদের বলছেন, সাধারণ মানুষের (স্বামী) জন্য উপবাস করে কিছু উপার্জন হয় না এবং তাদের ঈশ্বরের জন্য উপাবাস কর উচিত কারণ ঈশ্বর হলেন সম্গ্র বিশ্বের স্বামী।



গুরুমৎ রাম রহিম প্রতিবছর কারভা চৌথের সন্ধ্যায় মহিলা অনুসারীদের জন্য একটি মণ্ডলী সংগঠিত করতেন। সেই দিন তিনি মহিলাদের অনুগামীদের বার্তা দিতেন,যারা তাকে তাদের ‘আধ্যাত্মিক’ জীবন সঙ্গী হিসাবে বিবেচনা করত। এই বার্তাগুলি তাঁকে ঈশ্বর হিসেবে মহিমান্বিত করেছিল এবং অন্য মেয়েদেরকে একই কথা পুনরাবৃত্তি করার জন্য উৎসাহিত করতো।

প্রাক্তন ডেরা সদস্য, বর্তমানে সিবিআই সাক্ষী গুরদাস সিং টর বলেছেন,

“গুরমিট রাম রহিম ছোট ছোট মেয়েদের মনে এই ধারণা তৈরি করতেন যে তিনি তাদের স্বামী এবং তাদের মন ও দেহের মালিক। সবচেয়ে দুঃখজনক বিষয়টি হলো ছোট ছোট মেয়েদেরও পুরো দিনটি খাবার ও জল ছাড়া থাকতে বাধ্য করা হতো। “

ভিডিওটি এখানে দেখুন:

 


Advertisement


  • Advertisement