7 জনপ্রিয় পাকিস্তানি ব্যক্তিত্ব যারা নিজেদেরই ভাই-বোনদের বিয়ে করেছেন

author image
11:10 am 19 Jan, 2018

Advertisement

বিশ্বের অন্যান্য অংশে নিজের আত্মীয়ের মধ্যে বিয়ে করা কোনও স্বাভাবিক ব্যাপার নয়। পাকিস্তানে এই বিষয়টি খুবই সাধারণ। পাকিস্তানে এমন অনেক জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব আছেন যারা নিজেদের আত্মীয়ের মধ্যে বিয়ে করেছেন। আমরা এখানে এমন কয়েকজনের সম্পর্কে বলতে যাচ্ছি যারা নিজেদের সম্পর্কের বোনদের বিয়ে করেছেন।

1. শাহিদ আফ্রিদি

প্রাক্তন পাকিস্তানের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক শাহিদ আফ্রিদি তাঁর মায়ের কাকাতো ভাই এর মেয়েকে নাদিয়া বিয়ে করেছেন। 2000 সালে তারা বিয়ে করেন এবং এই দম্পতির চারটি মেয়ে।

2. সাঈদ আনোয়ার

এই প্রাক্তন পাকিস্তানী ক্রিকেটার তাঁর সম্পর্কে বোনকে বিয়ে করেছেন। যিনি পেশায় একজন ডাক্তার। তারা 1996 সালে বিয়ে করেন। 2001 সালে যখন আনোয়ারে মেয়ে বিসমাহ অসুস্থতার কারণে মারা যান। বিসমাহ মৃত্যু আনোয়ারের জীবনের ওপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে।

3. শায়েস্তা লোডি

শায়েস্তা লোদিনী একজন পাকিস্তানি অভিনেত্রী এবং টিভি উপস্থাপক। প্রথমে তিনি ওয়াকার ওয়াহিদকে বিয়ে করেন। কিন্তু তাদের তালাক হয়ে যায়। পরে তিনি তাঁর নিকট সম্পর্কের ভাই আদনান লোদিকে বিয়ে করেন।

4. নুসরাত ফতেহ আলী খান


Advertisement

কিংবদন্তি গায়ক নুসরাত ফতেহ আলী খান তাঁর কাকার মেয়ে নাহিদ নুসরতকে বিয়ে করেন। নুসরাত ফতেহ আলী খান এবং নাহিদ নুসরাত এর মেয়ের নাম হলো নিদা ফতেহ আলী খান।

5. সানম মারভি

জনপ্রিয় পাকিস্তানি সুফি গায়ক সানম মারভি বিয়ে করেছেন হামিদ আলী খানকে। তাদের তিনটি সন্তান। 2009 সালে সানমের প্রথম স্বামী আফতাব আহমেদ ফারারোকে করাচীতে হত্যা করা হয়।

6. বাবর খান

বাবর খান একজন জনপ্রিয় পাকিস্তানি টিভি অভিনেতা এবং মডেল। গাড়ি দুর্ঘটনায় স্ত্রী সানা খানের মৃত্যুর পরে তিনি তাঁর সম্পর্কের এক বোন বিসমাকে বিয়ে করেন। 2005 সালে বিসমা যখন নবম শ্রেণীতে পড়তেন তখন তাদের বিয়ে হয়।

7. রেহাম খান

রেহাম খান একজন সাংবাদিক এবং চলচ্চিত্র প্রযোজক। তিনি প্রথম ব্রিটিশ অাত্মীয় ইজাজ রেহমানের সাথে বিয়ে করেন। পরে তিনি পাকিস্তানি ক্রিকেটার ও রাজনীতিবিদ ইমরান খানকে বিয়ে করেন। তবে রেহাম ও ইমরানের বিয়ে এক বছরেরও বেশি চলেনি।

তবে এটা কতটা সত্য সেটা জানা নেই। তবে বলা হয় যে পাকিস্তানের 82.5% বাবা-মা তাদের রক্তের সম্পর্কের মধ্যে বিয়ে দেন। বাবা-মা এর মানে তারা কাকাতো ভাই অথবা পরিবারের কাছের সম্পর্কের সাথে বিয়ে দেন।

Advertisement


  • Advertisement