5 হাজার বছর আগে আরব সাগরে ডুবে যাওয়া দ্বারকা নগরের অবশিষ্টাংশ পাওয়া গেলো

author image
12:27 pm 15 Aug, 2017

Advertisement

সত্যযুগে শ্রী কৃষ্ণ দ্বারকা নামে একটি নগর তৈরি করেছিলেন। পুরাণ অনুযায়ী দ্বারকা একটি অত্যন্ত উন্নত শহর ছিল, যা ভগবান শ্রীকৃষ্ণ রাজধানী ছিল। বিশ্বাস অনুযায়ী, ভগবান শ্রীকৃষ্ণ এখানে প্রায় 36 বছর ছিলেন। তাঁর প্রাণ ত্যাগ করার কয়েক বছর পর দ্বারকা শহর সমুদ্রে ডুবে যায়।

ভারতীয় প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের নির্দেশনায় 2005 সালে প্রথমবার ভারতীয় নৌবাহিনীর ডুবুরিরা আরব সাগরে দ্বারকা শহরের ডুবে থাকার কথা বলেছিল। এই শহরের ধ্বংসাবশেষ বের করে আনা হয় এবং এটা সত্য প্রমাণিত হয়।

গবেষকদের মতে, এই ধ্বংসাবশেষ 40 হাজার বর্গ মিটার এলাকা জুড়ে বিস্তৃত রয়েছে। এই ধ্বংসাবশেষ চুনাপাথরের আকারে রয়েছে। প্রত্নতাত্ত্বিক বিশেষজ্ঞরা স্পষ্ঠ করেছেন, এই অংশটি বড় এবং সমৃদ্ধ শহর ও মন্দিরের অবশিষ্টাংশ রয়েছে। এই অবশিষ্টাংশের 200 নমুনা সমুদ্র থেকে বের করা হয়েছে।

তবে দ্বারকা শহরের ডুবে যাওয়ার বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের মধ্যে মতের পার্থক্য রয়েছে।



কয়েকজন মনে করেন হিমযুগের সমাপ্তির সময় সমুদ্রের জল স্তর বেড়ে গিয়েছিল, তখন অনেক উপকূলীয় শহর সমুদ্রের জলে ডুবে যায়, দ্বারকা তাদের মধ্যে একটি। তবে প্রশ্ন হলো যে প্রায় 10 হাজার বছর আগে হিমযুগের সমাপ্তি হয়েছিল এবং দ্বারকা শহরের নির্মাণ হয়েছিল প্রায় 5 হাজার বছর আগে।

পুরাণ মতে দ্বারকা নগরী ধ্বংসের পিছনে দুটি অনুমান রয়েছে। একটি অনুমান হলো শ্রী কৃষ্ণকে দেওয়া মাতা গান্ধারীর অভিশাপ আরেকটি হলো কৃষ্ণের পুত্র সাম্বকে দেওয়া ঋষিদের অভিশাপ।


Advertisement

গান্ধারী ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে মহাভারতের যুদ্ধের জন্য দোষী সাব্যস্ত করেছিলেন। তিনি অভিশাপ দিয়েছিলেন তাঁর যদুবংশ ধ্বংস হয়ে যাবে। অন্য আরেকটি অনুমান অনুযায়ী ভগবান শ্রীকৃষ্ণ এর পুত্র সাম্বের দ্বারা করা কৌতুকে ক্রুদ্ধ হয়ে ঋষিরা তাঁকে অভিশাপ দিয়েছিলেন যে যদুবংশের অবসান হবে।


  • Advertisement