মৃত্যুর খাঁচা: মৃত্যুর মুখে গিয়ে মানুষ ফটো তোলেন!

author image
11:27 am 14 Sep, 2017

Advertisement

নিজের তোলা সুন্দর ফটো প্রায় সকলেরই পছন্দ। প্রাচীন যুগে রাজা-রানীরাও নিজের ছবি তৈরি করাতেন। ক্যামেরা আবিষ্কারের ফলে এটি একটু সহজ হয়ে গেছে। বিশেষ অনুষ্ঠানে লোকেরা ফটো তোলেন এবং স্মৃতি সংরক্ষণ করে রাখেন। মোবাইলে ক্যামেরা আসার পর প্রতিদিন লোকেরা নিজেদের ফটো তোলেন। এখন সেলফির যুগে প্রতিটি মূহুর্তের ছবি তুলতে শুরু করেছি।

এখন মানুষ মৃত্যুর মুখে গিয়ে ফটো তুলতে শুরু করেছে।

আসুন দেখা যাক কিভাবে লোকেরা একটি ফটো তোলার জন্য মৃত্যুর মুখে যায়। পর্যটকরা অস্ট্রেলিয়ার ক্রোকোসরাস কভের কাছে অবস্থিত কেজ অফ্ ডেথে এই কুমীরকে কয়েক ইঞ্চি দূরত্ব থেকে ভাঁসতে দেখেন। এই কুমির 16 ফুট লম্বা, যাকে সল্টওয়াটার ক্রোকাডাইল বলা হয়। পর্যটকরা একটি পাতলা, স্বচ্ছ প্লাস্টিকের আবরণের মধ্যে থেকে এই কুমীরটিকে ভাঁসতে দেখেন।

এটাকে ‘কেজ অফ্ ডেথ ‘ বলা হয়। যার অর্ধেক অংশ জলের মধ্যে অর্ধেক অংশ জলের বাইরে থাকে। জলের অভ্যন্তরের অংশে গিয়ে সমুদ্রের প্রাণীদের দেখা যায়। অস্ট্রেলিয়ার একমাত্র ক্রোকোডাইল হাইবে এই বিশালাকার কুমীরের সাথে 15 মিনিট সময় কাটাতে পারবেন।

দেখা যাক কয়েকটি ফটো যেগুলি আপনাকে অবাক করে দেবে।

কুমীরের সাথে বন্ধুত্ব করে নিয়েছে হাত মেলানোর ফটো নিয়ে তার কেমন লাগছে সেই বলতে পারবে।


Advertisement

এই মহিলা কুমীরকে কিস করছে। এটা করার পর কেউ কিভাবে খুশি হতে পারে।

চিন্তা করবেন না, এই মহিলা জীবিত রয়েছে।

কুমীর আক্রমণের জন্য প্রস্তত, কিন্তু মানুষ কাচের মধ্যে আবদ্ধ।

বিশালাকার কুমীরকে সামনে থেকে দেখে অবাক হয়ে যাবেন।

ফটো তোলা পর্যন্ত ঠিক ছিল, কিন্তু এটা করা সত্যিই সাহসের ব্যাপার।

Advertisement


  • Advertisement