Advertisement

‘পদ্মাবতী’ সমর্থনের জন্য টুইটারে অদিতি রাও হায়দারিকে অপমান করা হলো

author image
4:25 pm 18 Nov, 2017

Advertisement

সঞ্জয় লীলা ভানসালির আসন্ন চলচ্চিত্র ‘পদ্মাবতী’ মুক্তি পাওয়ার আগে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। এবার পয়লা ডিসেম্বর ‘পদ্মাবতী’র মুক্তি নিয়ে নতুন সংশয় তৈরি হল। পয়লা ডিসেম্বর ছবির মুক্তি না আটকালে দীপিকার নাক কেটে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিল রাজপুত কর্ণি সেনা। পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালিরও শিরশ্ছেদের হুমকি দিয়েছিল তারা। এরপর পুলিশ তাদের নিরাপত্তা বাড়িয়েছে।

বলিউড অভিনেত্রী অদিতি রাও হায়দারি, যিনি আলাউদ্দিন খিলজি এর স্ত্রী ভূমিকায় অভিনয় করছেন। সম্প্রতি এই চলচ্চিত্রের মুক্তির জন্য সমর্থন করেছেন।

বিখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা ভানসালির কাজের প্রশংসা করে আদিতি বলেছেন, তিনি সেই কাহিনীকে স্মরণ করেছেন যা আমাদের দেশের সংস্কৃতির মধ্যে রয়েছে।

মনে হচ্ছে দৌরাত্ম্য এখন একটা প্রবণতা হয়ে দাড়িয়েছে মানুষ প্রায় সবকিছুর জন্য দৌরাত্ম্য দেখাছেন। এমনই কিছু ঘটেছে অদিতির সাথে। যখন তিনি পদ্মাবতীর সমর্থনে দাড়ান। ‘পদ্মাবতী’ সমর্থনের জন্য টুইটারে তাঁকে অপমানিত করা হয়।

এই ট্রলের প্রধান দিকটি হলো অপব্যবহার করা। টুইটারের মাধ্যমে অনেকে অভদ্র আচরণ করার যুযোগ পান।

যদি আপনি মনে করেন আদিতি এই ব্যক্তির টুইট দেখার পর তাকে উপেক্ষা করার চেষ্টা করেছেন। তাহলে সেটা ভুল। অদিতি এর সঠিক উত্তর দিযেছে।

দেখুন তাঁর টুইট:

অভিনেত্রী শুধুমাত্র একজনকে জবাব দেননি। তিনি বেশ কয়েকজন ট্রলারকে উত্তর দিয়েছেন। যারা তার বিয়েকে “প্রেম জিহাদ” এর একটি উদাহরণ হিসাবে অভিহিত করেন এবং তার অপমান করে।

অদিতি অন্যান্যদের জন্য উদাহরণ স্থাপন করেছে। তিনি স্পষ্টভাবে দেখিয়েছেন যে শান্ত থাকা একটি বিকল্প নয়। যদি লোকেরা অর্থহীন কথা বলে, তাহলে আপনার তাকে সঠিক উত্তর দেওয়ার অধিকার আছে।

 

Advertisement


  • Advertisement