Advertisement

বিশ্বকাপের ‘নায়ক’ হওয়ার পরেও মাঠে গরু চড়াতে বাধ্য এই খেলোয়াড়

author image
3:46 pm 28 Feb, 2018

Advertisement

ভারতীয় দলের নীল জার্সি পড়ে দেশের জন্য খেলা প্রত্যেক খেলোয়াড়ের স্বপ্ন। এটা এমন একটি অনুভূতি যা শব্দের মাধ্যমে প্রকাশ করা সম্ভব নয়। কেবল একটি গর্বিত অনুভুতির মাধ্যমে উপলব্ধি করা যায়।

আমাদের দেশে ক্রিকেটের আবেগ প্রায় সবার মধ্যে রয়েছে। কোন ক্রিকেটারের বিশ্বকাপে দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করা স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মতো।

আজ, আমরা আপনাদের এমন একজন খেলোয়াড়ের সম্পর্কে বলতে যাচ্ছি যিনি বিশ্বকাপে কেবলমাত্র ভারতীয় দলের অংশই নয় বরং টুর্নামেন্টের নায়কও ছিলেন। কিন্তু আজ সেই নায়কের অবস্হা শুনে আপনার দু:খ হবে।

একদিকে, মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং বিরাট কোহলি মত অভিজ্ঞ খেলোয়াড়রা আয়ের তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন। এমন একজন খেলোয়াড়ও আছেন যিনি আজকাল আর্থিক অভাবের কারণে গরু চড়াচ্ছেন।


Advertisement
আমরা এমন একজন ভারতীয় ক্রিকেটারের কথা বলছি, যিনি ভারতের জন্য সর্বাধিক উইকেট নিয়েছেন এবং অনেক রেকর্ড করেছেন। এই ক্রিকেটারের দুর্দান্ত খেলা দেখে অন্য ক্রিকেটাররা তাকে শচীন টেন্ডুলকার বলে ডাকতেন। আমরা এখানে যে ক্রিকেটারের কথা বলছি তাঁর নাম হলো ভালাজি ডামোর।

1998 বিশ্বকাপে ভালাজি একজন অল-রাউন্ডার হিসেবে প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। এই ক্রিকেটারে ভালো পারফরম্যান্সের কারণে ভারত সেমি-ফাইনাল পর্যন্ত পৌঁছাতে পারে। অলরাউন্ডার ভালাজির নাম সর্বাধিক উইকেট নেওয়ার রেকর্ড রয়েছে।

গুজরাটের একটি সাধারণ কৃষক পরিবারের সাথে যুক্ত। নেত্রহীন 38 বছরের ভালাজি আশা করেছিলেন বিশ্বকাপের পর তার জীবনে কিছু উন্নতি হবে, তবে দুর্ভাগ্যবশত,1998 বিশ্বকাপের 18 বছর পরও এই খেলোয়াড় আর্থিক দুর্দশার মধ্যে রয়েছেন।

সেই সময়ের রাষ্ট্রপতি কে.আর. নারায়ণন তাঁর প্রশংসা করেছিলেন। আজ সেই খেলোয়াড় মাঠে মাঠে গরু চড়াচ্ছেন। তাঁর স্ত্রী অনুও চাষের কাজে তাকে সাহায্য করেন।

Source

তাঁর অবস্থা সম্পর্কে ভালাজি বলেছেন, গুজরাট সরকার তাঁর প্রশংসা করেছিল। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনও চাকরি দেয়নি।

যদিও, একদিকে ক্রিকেট খেলোয়াড়দের প্রচুর সম্পদ ও খ্যাতি রয়েছে, তবে ভালাজির প্রতিভাবান ক্রিকেটার প্রতিভা থাকার সত্ত্বেও তাঁর কর্মজীবনের শেষেও একটি সম্মানজনক জীবন বাঁচার জন্য লড়াই করছেন।

Advertisement


  • Advertisement