আজও রহস্য হয়ে রয়েছে জগন্নাথ মন্দিরের 10 টি বিস্ময়কর বিষয়

author image
12:55 pm 17 Sep, 2017

Advertisement

উড়িষ্যার পুরিতে অবস্থিত জগন্নাথ মন্দির দশম ​​শতকে নির্মিত প্রাচীন মন্দিরগুলির মধ্যে একটি। জগন্নাথ মন্দির ভগবান বিষ্ণুর অষ্টম অবতার ভগবান কৃষ্ণকে নিবেদিত। পুরাণে এই মন্দিরকে পৃথিবীর বৈকুন্ঠ বলা হয়েছে। ব্রহ্ম ও স্কন্ধ পুরাণ অনুসারে, পুরিতে ভগবান বিষ্ণু পুরুষত্তম এবং নীলমাধবের অবতার নিয়েছিলেন, এরপর তিনি সভর জাতির সর্বোচ্চ ঈশ্বর রূপে পূজিত হন।

বিশ্বব্যাপী জগন্নাথ মন্দির তার মহত্ত্ব এবং অলৌকিকতার জন্য পরিচিত। মন্দির তার বিশ্বাস এবং মান্যতার জন্যও খুবই জনপ্রিয়। বলা হয় যে সত্যিকারের হৃদয় দিয়ে যে ভগবান জগন্নাথের মন্দিরে যান তার ইচ্ছা পূরণ হয়। আজও, এই মন্দিরের কিছু বিষয়ে সারা বিশ্বের কাছে রহস্য হয়ে রয়েছে।

1. মন্দিরের চূড়ায় অবস্হিত পতাকা

জগন্নাথ মন্দিরের শিখরে অবস্হিত পতাকা সর্বদা হাওয়ার বিপরীত দিকে উড়তে থাকে।

2. সুদর্শন চক্র

পুরির যে কোনও স্হান থাকে আপনি মন্দিরের ওপরে লাগানো সুদর্শন চক্র দেখতে পারবেন।

3. খাবার রান্না করার জন্য অনন্য উপায়

মন্দিরে প্রসাদ বানানোর জন্য সাতটি পাত্রকে একে অপরের উপরে স্থাপিত করা হয়। এই প্রসাদ কাঠ জ্বালিয়ে রান্না করা হয়। এই প্রক্রিয়ার মূল বিষয় হচ্ছে সবার উপরে থাকা পাত্রের প্রসাদ প্রথমেই তৈরি হয়ে যায়।

4. সিংহদ্বার

মন্দিরের সিংহদ্বার থেকে প্রথম ধাপ ভেতরে রাখার পরই সমুদ্রের ঢেউ থেকে আসা শব্দ শুনতে পারবেন। কিন্তু যখনই আপনি মন্দির থেকে এক ধাপ বাইরে রাখবেন তখন আপনি সমুদ্রে আওয়াজ শুনতে পারবেন না। সন্ধ্যার সময় এই অনুভূতি আরও অলৌকিক হয়।

5. মন্দিরে ওপর কোনও পাখি বা প্লেন ওড়ে না


Advertisement

সাধারণত সব মন্দিরের ওপর দিয়ে পাখি এবং প্লেন উড়তে দেখা যায়। কিন্তু জগন্নাথ মন্দিরের উপরে কোন পাখিকে উড়তে দেখা যায় না। এমনকি বিমানও মন্দিরের ওপর দিয়ে যায় না। এই জিনিস আজও বিশ্বের কাছে একটি রহস্য।

6. শস্যের কখনও অভাব হয় না

প্রতিদিন মন্দিরে প্রায় 2 হাজার থেকে 20 হাজার ভক্ত দর্শন করতে আসেন এবং ভোজনও করেন। তাও অন্নের অভাব হয় না। সব সময় ভান্ডার পরিপূর্ণ থাকে।

7. মন্দিরে শিখরে রয়েছে পতাকা

মন্দিরের একজন পুরোহিত মন্দিরের 45 তলা শিখরে লাগানো পতাকা প্রতিদিন পরিবর্তন করেন। কথিত আছে যে যদি একদিনও মন্দিরের পতাকা না পাল্টানো হয় তাহলে মন্দির আঠারো বছরের জন্য বন্ধ হয়ে যেতে পারে। পতাকা পরিবর্তন করার পদ্ধতি 1800 বছর ধরে চলে আসছে।

8. মন্দিরের ছায়া

এই মন্দিরের নকশাও খুব আকর্ষণীয়। কারণ দিনের কোনও সময়ে জগন্নাথ মন্দিরের মুখ্য শিখরের ছায়া পড়ে না।

9. চক্রের প্রতিষ্ঠা

মন্দিরের শিখরে লাগানো চক্রের কাহিনীও আকর্ষণীয়। এই চক্রের প্রতিষ্ঠার ইতিহাস 200 বছর পুরানো। যা আজও সকলের কাছে রহস্য।

10 ঊর্ধ্বমুখী বাতাস

সাধারণত বায়ু সমুদ্র থেকে ভুমির দিকে এবং সন্ধ্যার সময় পৃথিবী থেকে সমুদ্রের দিকে প্রবাহিত হয়। কিন্তু পুরিতে এটি একেবারে বিপরীত।

Advertisement


  • Advertisement