মসুল হাতছাড়া হওয়ার পর পালিয়ে যাওয়ার জন্য নারীদের পোশাকের আড়াল নিচ্ছে আইএসআইএস যোদ্ধারা

author image
4:08 pm 22 Oct, 2016

মসুল ইরাকের সেনার অধিকারে আসার পর স্ত্রী ও বান্ধবীদের শহর খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ভীত আইএসআইএস যোদ্ধারা নারীদের পোশাক পড়ে সেখান থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে।

যুদ্ধের চতুর্থ দিনের মধ্যে মসুলকে মুক্ত করিয়ে নেওয়া হয়েছে। এরপর সন্ত্রাস গ্রুপের কমান্ডার আবু বকর আল বাগদাদি জনশ্রুতিতে দলের নেতাদের সঙ্গে সম্বন্ধযুক্ত নারীদের ফায়ারিং লাইন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার কথা বলেন।

ভীত সন্ত্রাসীরা এখন নারীদের পোশাকের আড়ালে নিজেদেরকে বাচানোর চেষ্টা করছে।


সেনা আইএসআইএসএর দুজন যোদ্ধাকে মসুলের কাছে কুর্দি পেশমারগা ট্রুপের কাছে ধরেছে। তখন তাদের পড়নে ছিল মেয়েদের পোশাক। এটা বোঝা যাচ্ছে মসুল হাতছাড়া হয়ে যাওয়ায় বাগদাদী একেবারে কোণঠাসা হয়ে পড়েছে।

 

মার্কিন সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল গ্যারি ভলেসকী বলেছেন, আইএসআইএস কমান্ডাররা শহর থেকে পালিযে যাওয়ার জন্য নানা রকম পরিকল্পনা করছে। আইএসআইএস প্রধান আবু বকর আল বাগদাদি আইএসআইএস এর নেতাদের স্ত্রীকেও স্হান ত্যাগ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

বাগদাদীর আদেশক্রমে খেলাফত নারীদের পালিয়ে যেতে বলেছেন। যাতে তারা নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে না পড়ে যায়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কেন্দ্রীয় কমান্ডার জোসেফ ভোটেল বলেন, যুদ্ধ মাস ধরে চলবে। তিনি বলেন ইরাকী সময়সীমার সঙ্গে তিনি স্বাচ্ছন্দ্য। মসুল ও রাক্কায় যুগপত্ ধরে ঘটা বিষয়গুলির ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন।

গ্যারি ভলেসকীর মতে, “আমি মনে করি আমরা যখন ইসলামিক স্টেট বাহিনীর ওপর চাপ প্রয়োগ করি। তখন তারা অন্য স্থানে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তাদের অপারেশনের জন্য নতুন স্থান নির্দেশ করার চেষ্টা করে।”

Discussions



TY News