2018 সালে সম্পন্ন হবে ‘কলকাতা আই’, NGT এই প্রকল্পের অনুমোদন করেছে

author image
12:34 pm 3 Nov, 2016


লন্ডন আই প্রস্তাবিত ‘কলকাতা আই’ এর উপর খুব শীঘ্রই কাজ শুরু হবে। 2011 সালে প্রস্তাবিত রাজ্য সরকারের উচ্চাভিলাষী এই প্রকল্পে বারবার বাধা আসার কারণে কাজ শুরু হতে পারছিল না।

এখন জাতীয় সবুজ ট্রাইবুনাল (NGT) এই প্রকল্পের অনুমোদন করেছে। একটি শুনানিকালে ট্রাইব্যুনাল ইস্টার্ন জোন বেঞ্চ রাজ্য সরকারের প্রস্তাবকে পাশ করে দিয়েছে।

কলকাতা শহরের ট্রান্সমিউটেশনে উদ্দেশ্য শুরু করা এই প্রকল্পে লন্ডনের থেমস নদীর তীরে তৈরি। লন্ডন আই, ফেরি লাইনের একটি বিশাল চাকার অনুরূর চাকা বনানো হবে। এটার নাম দেওযা হবে ‘কলকাতা আই’।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বার বার বলেছেন যে তার স্বপ্ন কলকাতাকে শহরকে লন্ডনের মতো বিকশিত করা। যাতে এই শহরের ভাবমূর্তি আবার জীবিত হয়ে যায়। 2011 সালে মুখ্যমন্ত্রী রুপে শপথ নেওয়ার সাথে এই কাজ শুরু করে দিয়েছিলেন।

2014 সালে করকাতা মেট্রোপলিটন ডেভেলপমেন্ট অথরিটি (সিএমডিএ) এবং কলকাতা পোর্ট ট্রাস্ট যৌথভাবে কাজ শুরু করেছিল। কিন্তু পরিবেশ কর্মী সুভাষ দত্ত এর পিটিশনের কারণে এনজিটি এই কাজে বিরতি লাগিয়ে দিয়েছিলেন।

তার আবেদনে সুভাষ দত্ত বলেছিলেন হুগলি নদীর তীরে ধসের পরিপ্রেক্ষিতে এটা অত্যন্ত সংবেদনশীল। লন্ডন আই কারণে হুগলি নদীর প্রবাহ প্রভাবিত হতে। দত্তের আবেদনে বলা হয়েছিল চাকা ভারী হওয়ার কারণে এই বিন্যাস নিরাপদ হবে না।

outlooktraveller

outlooktraveller


এনজিটি এই মামলায় সব পক্ষের কাছে উত্তর চেয়েছিল। পরে কলকাতা পোর্ট ট্রাস্টের তরফ খেকে 9 একর জমি বরাদ্দ করার পর এই মামলা পরিষ্কার হয়। এই প্রকল্প অনুযায়ী হুগলী নদীর তীরে লন্ডন আই লাইনের অনুরূপ ফেরি এক বিশাল চাকা ছাড়াও পার্ক এবং রেস্টুরেন্ট তৈরি করা হবে।

‘কলকাতা আই’ এর নির্মাণের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে লন্ডনস্হিত কোম্পানী সান কনসালটিং এন্ড ইনভেসমেন্টকে। বিশাল চাকা বেলজিয়াম, ইংল্যান্ড, এবং চীনে নির্মিত করা হচ্ছে। একত্রিত করনের কাজ কলকাতায় করা হবে। 120 মিটার উঁচু ‘কলকাতা আই’ 60 টি কিউবিকল্স থাকবে। প্রতিটি কিউবিকল্সে 8 টি সিট থাকবে। পরের বছর শুরু হওয়া এই প্রকল্পের জন্য 300 কোটি টাকার বাজেট রাখা হয়েছে। প্রায় 18 মাসের মধ্যে সম্পন্ন করা হবে।

ব্রিটিশ শাসনকালে ভারতে রাজধানী ছিল কলকাতা। 1911 সালে কলকাতা রাজধানীর মর্যাদা লাভ করে এবং এখনও পর্যন্ত শহরে ইংরেজি স্থাপত্যের সাদৃশ্য রয়েছেন।

বস্তুত,কলকাতা শহরের অনেক কিছু লন্ডন শহরের মতো। কিন্তু সময়ের পরিবর্তনের সাথে এবং অর্থনৈতিক ব্যবস্হার কারণে এই শহর তার পুরনো খ্যাতির হারিয়ে ফেলেছে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী ক্ষমতায় আসার পরই জানিয়েছিলেন কলকাতাকে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ শহরগুলোর মধ্যে অন্যতম শহর বানাবেন। আশা করা হচ্ছে ‘কলকাতা আই’ 2018 এর প্রস্তুত হয়ে যাবে। এই প্রকল্পের কারণে চারশো জনের সরাসরি কর্মসংস্থান হবে আর পরোক্ষভাবে প্রায় 2 হাজার জন কর্মসংস্থানের সুযোগ পাবেন।

তৈরি হওযার পর ‘কলকাতা আই’ এমন দেখাবে।

Popular on the Web

Discussions