পাকিস্তানকে দেওযা MFN প্রত্যহারের পথে ভারত?

author image
6:37 pm 27 Sep, 2016


উরি হামলার পর কূটনীতিক দিক থেকে পাকিস্তানের ওপর চাপ বাড়াতে পূর্ণ প্রস্তুতি করে নিয়েছে ভারত। আগামী 29 সেপ্টেম্বর এমএফএন স্টেটাস নিয়ে আলোচনার জন্য উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে বসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই বৈঠকে উপস্হিত থাকবেন বিদেশ মন্ত্রক এবং অর্থ মন্ত্রকের প্রতিনিধিরা।

1996 সালে পাকিস্তানকে দেওযা মোস্ট ফেভারড নেশন (এমএফএন) বা সর্বাধিক সুবিধাপ্রাপ্ত রাষ্ট্রের মর্যাদা প্রত্যাহার করার ভাবনাচিন্তা করছে ভারত। এর আগে সোমবারে সিন্ধু জলবন্টন চুক্তি আলোচনা সভায় তিনি বলেন রক্ত ও জল একসঙ্গে প্রবাহিত হতে পারে না।

অ্যাসোচ্যামের পেশ করা পরিসংখ্যান অনুযায়ী-

2015-16 সালে ভারতের মোট বিদেশে বাণিজ্যের পরিমাণ ছিল 641 মিলিয়ন মার্কিন ডলার।


পাকিস্তানের সাথে বাণিজ্যের পরিমাণ ছিল 2.67 বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

পাকিস্তানে ভারতের রপ্তানির পরিমাণ 2.17 বিলিয়ন মার্কিন ডলার। যেখানে পাকিস্তান থেকে এসেছে 500 বিলিয়ন মার্কিন ডলারের পণ্যসামগ্রী। সর্বাধিক সুবিধাপ্রাপ্ত রাষ্ট্রের মর্যাদা দেওযা উচিত কিনা এই বিষয় খতিয়ে দেখার সময় এসে গেছে হলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞ মহল।

সিন্ধু জলবন্টন চুক্তি নিয়ে আলোচনা করতে সরকারের গুরুত্বপূর্ণ আধিকারিকদের নিয়ে সোমবার বৈঠকে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সাউথ ব্লকের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল, বিদেশ সচিব এস জয়শঙ্কর, জলসম্পদ দফতরের সচিব এবং প্রধানমন্ত্রীর দফতরের পদস্থ আধিকারিকরা।

এই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন ‘রক্ত ও জল একই সময়ে একই সাথে প্রবাহিত হতে পারে না।’

Discussions



TY News