ফের দেশে গণধর্ষণ,এবার ঘটনাটি ঘটেছে উওরপ্রদেশের বুন্দলশহরে

author image
4:18 pm 1 Aug, 2016


ফের গণধর্ষণের মত নৃশংস ঘটনা ঘটে গেল উওরপ্রদেশের বুন্দলশহরে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাতে। গণধর্ষণ করার ঘটনায় 15 জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মূল অভিযুক্ত এখনও অধরা থাকলেও, তাকে চিহ্নিত করা গিয়েছে। তার খোঁজে জোর তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, নির্যাতিতা মা ও মেয়ে পরিবারের অন্যান্য চার সদ্যসের সাথে দিল্লি-কানপুর 91নম্বর জাতীয় সড়ক দিয়ে নয়ডা থেকে শাহজাহানপুর যাচ্ছিলেন। সেই সময় দোস্তপুরের গ্রামের কাছে রাস্তার ধারে লুকিয়ে থাকা ডাকাতরা গাড়িকে লক্ষ্য করে লোহার রড ছোড়ে। গাড়ি থামাতেই ঘিরে ফেলে ডাকাতের দল। বন্দুক দেখিয়ে গাড়ির চালককে গাড়িকে মাঠে নামাতে বাধ্য করে ।

35 বছরের মা এবং 14 বছরের কিশোরীকে তিন ঘন্টা ধরে গণধর্ষণ করে দুষ্কৃতীর দল।পরে 11 হাজার টাকা এবং গয়না নিয়ে চম্পট দেয়। তারা গাড়ির চাকা মাঠের কাঁদায় ডুবে থাকায় তারা সারারাত মাঠে আটকে থাকে শনিবার দিন সকালে কোনওক্রমে বেরিয়ে নিকটবর্তী থানায় গিয়ে এফআইআর দায়ের করে। এই ঘটনা ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে স্হানীয় বাসিন্দারা রাগে ফেটে পড়ে ।অশৃঙ্খল আইন ব্যবস্হা নিয়ে বিক্ষোভে সরব হন

indianexpress

indianexpress


এরপরই কোতওয়ালি দেহাতের স্টেশন অফিসার এবং নাইট ডিউটি অফিসারকে সাসপেন্ড করা হয়। এছাড়াও সার্কেল ইন্সপেক্টরের বিরুদ্ধে তদন্তেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিরোধীরা মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবের সরকারের সমালোচনা শুরু করেছে । সমালোচনার মুখে 24-ঘ্ণ্টার মধ্যে ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করার নির্দেশ বুলন্দশহরের দিয়েছেন এসএসপি বৈভব কৃষাণকে ।

পাশাপাশি, তিনি রাজ্যের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি (স্বরাষ্ট্র) দেবাশিস পাণ্ডা এবং রাজ্য পুলিশের ডিজি জাভেদ আহমেদকে নির্দেশ দেন গোটা বিষয়টির ওপর নজর রাখতে।

বৈভব কৃষাণ জানিয়েছেন, রাজ্যের স্পেশ্যাল টাস্ক ফোর্সের সাহায্য চাওয়া হয়েছেএবং নির্যাতিতাদের মেডিক্যাল পরীক্ষা হয়েছে । ডিআইজি (মেরঠ রেঞ্জ) লক্ষ্মী সিংহ জানিয়েছেন, এই ঘটনার তদন্তের জন্য পুলিশ 6টি স্পেশাল টাস্ক ফোর্স (এসটিএফ) দল গঠন করেছে।

Popular on the Web

Discussions



  • Viral Stories

TY News