পাকিস্তানের কোয়েট্টায় জঙ্গি হামলা, মৃত 60

2:35 pm 25 Oct, 2016


পাকিস্তানের কোয়েট্টায় সবথেকে বড় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলা। এই হামলায় কমপক্ষে 60 জনেরও বেশি লোকের মৃত্যু হওয়ার খবর রয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ হামলার ঘটনা ঘটে। স্থানীয় মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী,আত্মঘাতী বোমা হামলাকারীর নিশানায় ছিল কোয়েট্টা শহরের পুলিশ প্রশিক্ষণ কেন্দ্র।

হামলার সময় পুলিশ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে উপস্হিত ছিল 500 জনেরও বেশি পুলিশ কর্মী। দীর্ঘ পাঁচ ঘন্টা ধরে সেনা জওয়ান,পুলিশ ও জঙ্গিদের মধ্যে লড়াই চলে। আক্রমণকারী প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ঢুকে কয়েকজন পুলিশ কর্মীকে পণবন্দি করে নেয়। তিনজন জঙ্গি নিহত হওয়ার খবর রয়েছে। জঙ্গিরা যখন হামলা চালয় তখন প্রশিক্ষণ নিতে আসা বেশিরভাগ পুলিশ কর্মী ঘুমিয়ে ছিল।

ইসলামাবাদে প্রকাশিত দ্য নেশন পত্রিকায় বলা হয়েছে এই হামলার সাথে যুক্ত রয়েছে স্হানীয় জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-জাঙভি গোষ্ঠী। এই পত্রিকায় বলা হয়েছে জঙ্গিরা আফগানিস্তান থেকে এসেছিল। লস্কর-ই-জাঙভি গোষ্ঠী নামক এই গোষ্ঠীর মুল ঘাটি রয়েছে পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশে। এরা একাধিকবার বালুচিস্তানে সাম্প্রদায়িক হামলা চালিয়েছে।

বালুচিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মীর সরফরাজ আহমেদ বুগতি কোয়েট্টায় এই সন্ত্রাসী হামলার কথা স্বীকার করেছেন। ফ্রন্টিয়ার কোরের আইজি মেজর জেনারেল শের আফগান জানিয়েছেন জঙ্গিরা আফগানিস্তানে অবস্হিত তাদের হ্যান্ডলারদের সাথে কথা বলছিল।

এদিকে, ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পারিক্কর কোয়েট্টা হামলার নিন্দা করেছেন।

Discussions